মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সেবার তালিকা

                                     নামজারী ও জমাভাগ সংক্রান্ত তথ্যঃ

 

আবেদনের সাথে সংযুক্ত কাগজপত্রঃ

 

১।

সংশি­ষ্ট খতিয়ানের ফটোকপি/সার্টিফাইড কপি

২।

(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ) ওয়ারিশ সনদপত্র (অনধিক তিন মাসের মধ্যে ইস্যুকৃত)

৩।

মূল দলিলের সার্টিফাইড/ফটোকপি

 ৪।

সর্বশেষ জরিপের পর থেকে বায়া/পিট দলিল এর সার্টিফাইড/ফটোকপি(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৫।

ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের দাখিলা

৬।

আদালতের রায়/আদেশ/ডিক্রির সার্টিফাইড কপি(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৭।

তফসিলে বর্ণিত চৌহদ্দিসহ কলমি নক্সা

আবেদনকারীর/আবেদনকারীর প্রতিনিধির পাসপোর্ট সাইজের ০১(এক) কপি ছবি।

 

আবেদনকারীর জন্য তথ্যাবলিঃ

 

১। নামজারীর আবেদন সরাসরি উপজেলা ভূমি অফিসে দাখিল করতে হবে।

২। আবেদনের ক্রম অনুসারে আবেদন নিষ্পত্তি হবে।

৩। শুনানী গ্রহণকালে দাখিলকৃত কাগজপত্রের মূল কপি সঙ্গে আনতে হবে।(মূল কপি আবেদনের সাথে জমা দেয়ার  প্রয়োজন নেই)।

৪। নামজারি জমাভাগ ও জমাএকত্রিকরণ ফি বাবদ সর্বমোট=২৫০/-(দুই শত পঞ্চাশ) টাকা।

 

ক.

আবেদন বাবদ কোর্ট ফি

৫/-(পাঁচ) টাকা

খ.

নোটিশ জারী ফি

২/-(দুই)টাকা (অনধিক ৪(চার)জনের জন্য),চার জনের অধিক প্রতি  জনের জন্য আরো ০.৫০টাকা হিসেবে আদায় করা হবে।

গ.

রেকর্ড সংশোধন ফি

২০০/-(দুইশত) টাকা

ঘ.

প্রতি কপি মিউটেশন খতিয়ান ফি

২৫/- +১৮/- =৪৩(তেতালি­শ) টাকা

 

সর্বমোট

২৫০/-(দুইশত পঞ্চাশ) টাকা + নোটিশ জারী ফি ৪/- এর অধিক হলে প্রতিজনের জন্য আরো ০.৫০টাকা হিসেবে আদায় করা হবে।

 

৫। আদিবাসীদের সম্পত্তি নামজারী ও জমাভাগের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব), মাগুরা মহোদয়ের অনুমতি নিতে হবে।

৬। আবেদন নিষ্পত্তি করণের সময়সীমাঃ  ৪৫(পঁয়তালি­শ)  কার্যদিবস।

৭। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ইউনিয়ন /উপজেলা ভূমি অফিসে দখল/প্রয়োজনীয় মালিকানার রেকর্ডপত্র দেখাতে হবে।

৮। প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও যে কোন অভিযোগের ক্ষেত্রে সহঃ কমিশনার(ভূমি) এর সহিত যোগাযোগ করবেন।

৯। সরকারী স্বার্থ জড়িত না থাকলে সর্বশেষ নামজারীর ভিত্তিতেই নামজারী করা হবে। সেক্ষেত্রে নামজারিকৃত সর্বশেষ 

     খতিয়ান ছাড়া অন্য কোন কাগজপত্রের প্রয়োজন হবে না।

১০। উপজেলা ভূমি অফিস থেকে আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে। ফর্মের জন্য কোন ফি প্রয়োজন হবেনা। ভূমি মন্ত্রণালয়ের Website: www.minland.gov.bdথেকে  ফরম  ডাউনলোড  করে ব্যবহার করা যাবে।

       তাছাড়া সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য সেবা কেন্দ্র থেকেও আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে।

 

খাস কৃষি জমি বন্দোবস্ত  সংক্রান্ত তথ্যঃ

 

 ১। নিম্নোক্ত শ্রেণীর ব্যক্তিবর্গ খাস কৃষি জমি বন্দোবস্তের জন্য আবেদন করতে পারবেঃ

ক)    দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

L)       নদী ভাঙ্গা পরিবার।

M)     সক্ষম পুত্রসহ বিধবা বা স্বামী পরিত্যক্তা পরিবার।

N)      কৃষি জমি নাই ও বাস্তুভিটাহীন পরিবার।

O)      অনধিক ০.১০একর বসতবাটি আছে কিন্তু কৃষি জমি নাই এমন কৃষি নির্ভর পরিবার।

P)       অধিগ্রহণের ফলে ভূমিহীন হইয়া পড়িয়াছে এমন পরিবার।

২। ১২ই মে ১৯৯৭খৃঃ তারিখের গেজেটে প্রকাশিত নীতিমালা মোতাবেক নির্ধারিত আবেদন পত্র পূরণ করে উপজেলা  ভূমি অফিসে জমা দিতে হবে। নির্ধারিত আবেদনপত্র উপজেলা ভূমি অফিস থেকে সরবরাহ করা হয়।

      তাছাড়া সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য সেবা কেন্দ্রে আবেদনপত্র পাওয়া যাবে।

 

                   আবেদনপত্রের সঙ্গে যে সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করতে হবেঃ

 

    ক) ভূমিহীন হিসাবে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর প্রত্যায়ন পত্র।

     খ) মyুক্তযোদ্ধা হলে মুক্তিযোদ্ধা সনদের  সত্যায়িত ফটোকপি।

     গ) ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কর্তৃক নাগরিকত্ব/চারিত্রিক সনদ।

     ঘ) ০৩ (তিন) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কর্তৃক সত্যায়িত।

বিঃ দ্রঃ  ক) স্বামী-স্ত্রী উভয়ের নামে আবেদন করতে হবে। স্বামী না থাকলে অবিবাহিত সন্তানের নামে আবেদন করতে হবে, আর যাদের নামে আবেদন করা হবে তাদের উভয়েরই ছবি লাগবে, আবেদনপত্র নিজ হাতে

              স্পষ্টাক্ষরে পূরণ করতে হবে।

         খ) রেকর্ডে নদী, পুকুর, হালট শ্রেণীর জমি ও হাটের পেরীফেরীভূক্ত জমি বন্দোবস্ত পাওয়ার জন্য আবেদন করা যাবে না।

 

অর্পিত সম্পত্তির ব্যবস্থাপনা সংক্রান্তঃ

 

১। অর্পিত সম্পত্তির রেকর্ড রেজিঃ, কেস নথি এবং তালিকা সংরক্ষণ করা হয়।

২। কেসভূক্ত অর্পিত সম্পত্তি বাৎসরিক ভিত্তিতে লীজ প্রদান করা হয়।

৩। লীজ প্রদানকৃত সম্পত্তির বাৎসরিক নবায়ন করা হয়।

৪। অর্পিত সম্পত্তি লীজ প্রদানের ক্ষেত্রে  সরকার নির্ধারিত হারে সালামী গ্রহণ করা হয়।

কৃষি একর প্রতি ৫০০ টাকা

অকৃষি ভিটা শ্রেণী একর প্রতি ২০০০ টাকা

শিল্প/বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত কৃষি জমি একর প্রতি ৩০০০ টাকা

আবাসিক কাচা ঘর (মেঝে কাচা টিনের দেয়াল ও ছাঁদ) প্রতি বর্গফুট ১ টাকা

আবাসিক পাকা ঘর (দালান) প্রতি বর্গফুট ৩.৫০ টাকা

আবাসিক আধা পাকা ঘর (মেঝে দেয়াল পাকা ও টিনের ছাঁদ) প্রতি বর্গফুট ১.৫০ টাকা

টিনের ঘর, আধাপাকা ঘর/পাকা ঘর (যদি বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত হয়) প্রতি বর্গফুট ৪.০০ টাকা

৫। লীজকৃত অর্পিত সম্পত্তি নবায়ন কালে ১৫০/-টাকার নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে অঙ্গীকার নামা প্রদান করতে হয়।

 

হাট-বাজার সংক্রান্তঃ

 

১। হাট-বাজারের সরকারী সম্পত্তির রেকর্ড রেজিঃ সংরক্ষণ করা হয়।

২। হাট-বাজারের বন্দোবস্তযোগ্য জমিতে অস্থায়ীভাবে ব্যবসা বানিজ্যের জন্য একসনা লাইসেন্স প্রদান করা হয়।

 

 উচ্ছেদ সংক্রান্তঃ

 

     সরকারী সম্পত্তিতে অবৈধ দখলকারগণকে আইনগত ভাবে উচ্ছেদ করা হয়।

 

জলমহল সংক্রান্তঃ

 

     ২০.০০ একরের নিম্নের খাস বদ্ধজলাশয়সমূহ বাৎসরিক ভিত্তিতে ইজারা প্রদান করা হয়।

 

বালুমহাল ব্যবস্থাপনাঃ

 

     বালু মহলের রেকর্ড রেজিষ্টার সংরক্ষণ করা হয়।

 

 

 

       
       

 

 

 

 

আবেদনের সাথে সংযুক্ত কাগজপত্রঃ

 

১।

সংশি­ষ্ট খতিয়ানের ফটোকপি/সার্টিফাইড কপি

২।

(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ) ওয়ারিশ সনদপত্র (অনধিক তিন মাসের মধ্যে ইস্যুকৃত)

৩।

মূল দলিলের সার্টিফাইড/ফটোকপি

 ৪।

সর্বশেষ জরিপের পর থেকে বায়া/পিট দলিল এর সার্টিফাইড/ফটোকপি(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৫।

ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের দাখিলা

৬।

আদালতের রায়/আদেশ/ডিক্রির সার্টিফাইড কপি(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)

৭।

তফসিলে বর্ণিত চৌহদ্দিসহ কলমি নক্সা

আবেদনকারীর/আবেদনকারীর প্রতিনিধির পাসপোর্ট সাইজের ০১(এক) কপি ছবি।

 

              

 

 আবেদনকারীর জন্য তথ্যাবলিঃ

 

১। নামজারীর আবেদন সরাসরি উপজেলা ভূমি অফিসে দাখিল করতে হবে।

২। আবেদনের ক্রম অনুসারে আবেদন নিষ্পত্তি হবে।

৩। শুনানী গ্রহণকালে দাখিলকৃত কাগজপত্রের মূল কপি সঙ্গে আনতে হবে।(মূল কপি আবেদনের সাথে জমা দেয়ার  প্রয়োজন নেই)।

৪। নামজারি জমাভাগ ও জমাএকত্রিকরণ ফি বাবদ সর্বমোট=২৫০/-(দুই শত পঞ্চাশ) টাকা।

 

ক.

আবেদন বাবদ কোর্ট ফি

৫/-(পাঁচ) টাকা

খ.

নোটিশ জারী ফি

২/-(দুই)টাকা (অনধিক ৪(চার)জনের জন্য),চার জনের অধিক প্রতি  জনের জন্য আরো ০.৫০টাকা হিসেবে আদায় করা হবে।

গ.

রেকর্ড সংশোধন ফি

২০০/-(দুইশত) টাকা

ঘ.

প্রতি কপি মিউটেশন খতিয়ান ফি

২৫/- +১৮/- =৪৩(তেতালি­শ) টাকা

 

সর্বমোট

২৫০/-(দুইশত পঞ্চাশ) টাকা + নোটিশ জারী ফি ৪/- এর অধিক হলে প্রতিজনের জন্য আরো ০.৫০টাকা হিসেবে আদায় করা হবে।

 

৫। আদিবাসীদের সম্পত্তি নামজারী ও জমাভাগের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব), সিরাজগঞ্জ মহোদয়ের অনুমতি নিতে হবে।

৬। আবেদন নিষ্পত্তি করণের সময়সীমাঃ  ৪৫(পঁয়তালি­শ)  কার্যদিবস।

৭। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ইউনিয়ন /উপজেলা ভূমি অফিসে দখল/প্রয়োজনীয় মালিকানার রেকর্ডপত্র দেখাতে হবে।

৮। প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও যে কোন অভিযোগের ক্ষেত্রে সহঃ কমিশনার(ভূমি) এর সহিত যোগাযোগ করবেন।

৯। সরকারী স্বার্থ জড়িত না থাকলে সর্বশেষ নামজারীর ভিত্তিতেই নামজারী করা হবে। সেক্ষেত্রে নামজারিকৃত সর্বশেষ 

     খতিয়ান ছাড়া অন্য কোন কাগজপত্রের প্রয়োজন হবে না।

১০। উপজেলা ভূমি অফিস থেকে আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে। ফর্মের জন্য কোন ফি প্রয়োজন হবেনা। ভূমি মন্ত্রণালয়ের Website: www.minland.gov.bdথেকে  ফরম  ডাউনলোড  করে ব্যবহার করা যাবে।

       তাছাড়া সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য সেবা কেন্দ্র থেকেও আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে।

ভূমি উন্নয়ন করের তথ্য

 

1.     কৃষি জমির ভূমি উন্নয়ন করের হার (পৌর এলাকা বহির্ভূত):

·    ২৫ বিঘা পর্যমত্ম ভূমি উন্নয়ন কর মওকুফ।

·    ৩০ বিঘা পর্যমত্ম প্রতি শতাংশ ০.৫০ টাকা।

·    ৩০ বিঘার উপরে জমির জন্য প্রতি শতাংশ ১.০০ টাকা।

2.     আবাসিক ও অন্য উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত জমির ভূমি উন্নয়ন করের হার (পৌর এলাকা):

অবস্থান

আবাসিক (প্রতি শতাংশ)

শিল্প/ বাণিজ্যিক (প্রতি শতাংশ)

জেলা সদরের পৌর এলাকা

৭.০০ টাকা

২২.০০ টাকা

জেলা সদরের বাইরে পৌর এলাকা

৬.০০ টাকা

১৭.০০ টাকা

পৌর এলাকা ঘোষিত হয়নি এরূপ এলাকা

৫.০০ টাকা

১৫.০০ টাকা

 

 

খাস কৃষি জমি বন্দোবস্ত  সংক্রান্ত তথ্যঃ

 

 ১। নিম্নোক্ত শ্রেণীর ব্যক্তিবর্গ খাস কৃষি জমি বন্দোবস্তের জন্য আবেদন করতে পারবেঃ

ক)    দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

Q)      নদী ভাঙ্গা পরিবার।

R)       সক্ষম পুত্রসহ বিধবা বা স্বামী পরিত্যক্তা পরিবার।

S)        কৃষি জমি নাই ও বাস্তুভিটাহীন পরিবার।

T)      অনধিক ০.১০একর বসতবাটি আছে কিন্তু কৃষি জমি নাই এমন কৃষি নির্ভর পরিবার।

U)      অধিগ্রহণের ফলে ভূমিহীন হইয়া পড়িয়াছে এমন পরিবার।

২। ১২ই মে ১৯৯৭খৃঃ তারিখের গেজেটে প্রকাশিত নীতিমালা মোতাবেক নির্ধারিত আবেদন পত্র পূরণ করে উপজেলা  ভূমি অফিসে জমা দিতে হবে। নির্ধারিত আবেদনপত্র উপজেলা ভূমি অফিস থেকে সরবরাহ করা হয়।

      তাছাড়া সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য সেবা কেন্দ্রে আবেদনপত্র পাওয়া যাবে।

 

                   আবেদনপত্রের সঙ্গে যে সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করতে হবেঃ

 

    ক) ভূমিহীন হিসাবে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এর প্রত্যায়ন পত্র।

     খ) মyুক্তযোদ্ধা হলে মুক্তিযোদ্ধা সনদের  সত্যায়িত ফটোকপি।

     গ) ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কর্তৃক নাগরিকত্ব/চারিত্রিক সনদ।

     ঘ) ০৩ (তিন) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংশি­ষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কর্তৃক সত্যায়িত।

বিঃ দ্রঃ  ক) স্বামী-স্ত্রী উভয়ের নামে আবেদন করতে হবে। স্বামী না থাকলে অবিবাহিত সন্তানের নামে আবেদন করতে হবে, আর যাদের নামে আবেদন করা হবে তাদের উভয়েরই ছবি লাগবে, আবেদনপত্র নিজ হাতে

              স্পষ্টাক্ষরে পূরণ করতে হবে।

         খ) রেকর্ডে নদী, পুকুর, হালট শ্রেণীর জমি ও হাটের পেরীফেরীভূক্ত জমি বন্দোবস্ত পাওয়ার জন্য আবেদন করা যাবে না।

 

হাট-বাজার সংক্রান্তঃ

 

       হাট-বাজারের সরকারী সম্পত্তির রেকর্ড রেজিঃ সংরক্ষণ করা হয়।

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter